নাব্যতা সংকটে ভোলা-লক্ষ্মীপুর ঘাটে অপেক্ষা করতে হয় পণ্যবাহী ট্রাক

এম. শরীফ হোসাইন, ভোলা ॥ ভোলা-লক্ষ্মীপুর নৌরুটে নাব্যতা সংকটে ফেরী চলাচল ব্যাহত হওয়ায় ঘাটে আটকা পড়েছে প্রায় দুই শতাধিক পণ্যবাহী যানবাহন। বিআইডাব্লিউটিসি ও ফেরীঘাট সূত্রে জানা যায়, দেশের দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ লক্ষ্মীপুরে মজুচৌধুরীরহাট-ভোলা ইলিশা এ নৌ-রুট দিয়ে যাতায়াত করছে। গত এক সপ্তাহ ধরে নাব্যতা সংকট ও ঘন কুয়াশার কারণে ভোলার ইলিশা ফেরীঘাটে আটকা পড়েছে ২শর বেশি পণ্যবাহি ট্রাকসহ ছোটবড় যানবাহন। এতে করে ট্রাকে পচঁন ধরেছে আলু, পেয়াজ ও রসুনসহ নিত্য প্রয়োজনী বিভিন্ন রকমের কাঁচামাল। ফলে দুর্ভোগে পড়েছেন চালকরা। লক্ষ্মীপুর ও ভোলার ইলিশা সড়কে তৈরি হয়েছে দীর্ঘ যানজট।
নাব্যতা সংকট ও ঘন কুয়াশার কারণে ফেরী চলাচল ব্যাহত হওয়ায় দু:চিন্তায় পড়েছেন চালক ও ব্যবসায়ীরা। এ নৌ-রুটের বিভিন্ন স্থানে নতুন ডুবোচর জেগে উঠায় প্রতিদিন ৪/৮ ঘন্টা ফেরী ডুবোচরে আটকে থাকতে হয়। জোয়ার আসলেই কিছুটা পানি বাড়ায় ফেরী চলাচল শুরু হলেও ফেরী কম থাকায় দিনের পর দিন ঘাটে না খেয়ে পড়ে থাকতে হয়। দ্রুত ঘাটে ফেরী সংকট সমাধান না করলে দুর্ভোগ আরো বাড়বে বলে জানান এ নৌ-রুটে চলাচলকারী চালকরা।
বর্তমানে তিনটি ফেরী চলাচল করছে এ নৌ-রুটে বলে জানান বিআইডব্লিউটিসির ইলিশা ঘাটের সহকারী পরিচালক কামরুল ইসলাম। তিনি আরো জানান, নৌপথে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে তবে নাব্যতা সংকটের কারনে কিছুটা ফেরি চলাচলে বিঘœ ঘটে। যাত্রীবাহী গাড়ি এবং পচনশীল ও জরুরী পণ্যবাহী ট্রাক-লড়ি-কাভার্ড ভ্যানকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পার করার কারণে ঘাট এলাকায় পণ্যবাহী ট্রাক আটকা পড়েছে। তবে, পর্যায়ক্রমে সেগুলোকে পার করা হচ্ছে।
বিআইডব্লিউটিসির ইলিশা ফেরী ঘাটের ব্যবস্থাপক মো. পারভেজ খাঁন জানান, নাব্যতা সংকটের কারণে ফেরী চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। এতে করে দু-পাড়ে কয়েকশ পণ্যবাহি ট্রাক আটকা পড়েছে। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তিনি দ্রুত সমস্যা সমাধানের আশাবাদ করেন ।

আরও পড়ুন

Friday, May 20, 2022

সর্বশেষ