নওগাঁর রাজু তৈরী করলেন বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী বালতি! দেশজুড়ে হইচই

প্রযুক্তি বিশ্ব : বিদ্যুৎ দিয়ে পানি গরম করার সময় অসাবধানতার কারণে পানি বিদ্যুতায়িত হয়ে ঘটে নানা দুর্ঘটনা। বিদ্যুৎ খরচও হয় অনেক। দুর্ঘটনা, বিদ্যুৎসাশ্রয়ী ও স্বল্পমূল্যে সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখতে দেশীয় প্রযুক্তি দিয়ে বিদ্যুৎসাশ্রয়ী ও বিদ্যুৎনিরোধক পানি গরম করার যন্ত্র আবিষ্কার করলেন নওগাঁর এসএম ইব্রাহীম হোসেন রাজু। এ যন্ত্র ব্যবহারে পানি বিদ্যুতায়িত হয়ে কোনো প্রাণীর মারা যাওয়া বা কোনো দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা নেই। এসএম ইব্রাহীম হোসেন রাজু তার মায়ের নামানুসারে এই যন্ত্রটির নাম দিয়েছেন ‘নূরজাহান বালতি’। উদ্ভাবক এসএম ইব্রাহীম হোসেন রাজু জানান, তার এ যন্ত্রটিতে ইন্ট্রিগেটর, ফিউজ, হিটার/কয়েল ব্যবহৃত হয়েছে। যন্ত্রটিতে ৭৫০ ওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন হিটার ব্যবহার করে ঘণ্টায় ৮০ থেকে ১০০ লিটার পানি গরম করতে পৌনে এক ইউনিট (শূন্য দশমিক ৭৫ ইউনিট) বিদ্যুৎ খরচ হয়।

অথচ বাজারে যেসব কোম্পানির সর্বনিম্ন এক হাজার ওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন পানির হিটার পাওয়া যায়, সেগুলো ঘণ্টায় এক ইউনিট বিদ্যুৎ খরচ হয়। সেখান থেকে গরম পানি পাওয়া যায় মাত্র ৫০ থেকে ৬০ লিটার। বাজারে কেনা পানির হিটার নষ্ট হয়ে গেলে যন্ত্রাংশ পরিবর্তন করা সম্ভব হয় না। আবার এক হাজার ওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন পানি হিটারের সর্বনিম্ন দাম ৫ থেকে ৬ হাজার টাকা। অথচ ‘নূরজাহান বালতি’ নামে যন্ত্রটি তৈরি করতে ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা খরচ হয়। দেশীয় প্রযুক্তি দিয়ে তার উদ্ভাবনকৃত যন্ত্রটিতে খরচ হয় ১৯০ টাকা। সর্বমোট ৩৫০ টাকা খরচ হয়। এ যন্ত্রের কোনো যন্ত্রাংশ নষ্ট হলে তা পরিবর্তন করা সম্ভব।

আরও পড়ুন

Thursday, September 16, 2021

সর্বশেষ