স্কুলছাত্রীর চুল কেটে দেয়ায় আটক ২

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধা সদর উপজেলায় ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী নুরিনা আকতারের (১৫) মাথার চুল কেটে দিয়েছে প্রতিবেশী যুবকরা। এ ঘটনায় মামলা হলে অভিযুক্ত বাটুল মিয়া (৫০) ও তার ভাই আবদুস সালামকে (৪৮) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার দুপুরে উপজেলার রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের হরিণসিংহা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে নুরিনার মাথার চুল কেটে ফেলার ঘটনা ঘটে। নুরিনা আকতার সদর উপজেলার বোয়ালী ইউনিয়নের রাধাকৃষ্ণপুর ইটলিরভিটা গ্রামের নুরু মিয়ার মেয়ে। সে হরিণসিংহা উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী।

মামলার এজাহার ও নুরিনার পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, একই গ্রামের বাটুল মিয়ার একটি ছাগল শুক্রবার প্রতিবেশী নুরু মিয়ার ছেলে আজাদ হোসেনের জমির ফসল খায়। ফসল খাওয়াকে কেন্দ্র করে আজাদ হোসেন ছাগলটিকে মেরে ফেলে। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে শালিসি বৈঠকে ছাগলের মূল্য পরিশোধের সিদ্ধান্ত হয়। গতকাল শনিবার সকালের মধ্যে ওই টাকা পরিশোধের কথা ছিল। কিন্তু টাকা পরিশোধ না করায় দুই প্রতিবেশীর মধ্যে ঝগড়া হয় এবং দুই পরিবারের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। একপর্যায়ে নুরু মিয়ার মেয়ে নুরিনা আকতার বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে বাটুল মিয়ার ছেলে আরিফ মিয়া ও আলম মিয়ার ছেলে রাকিব মিয়া এবং আব্দুস সালামের ছেলে আশিক মিয়া তার পথরোধ করে আটক করে। এরপর তারা নুরিনাকে মারপিট করে হাতের ঘড়ি গলার হার ছিনিয়ে নেয়। একপর্যায়ে তারা নুরিনার মাথার চুল কেটে ফেলে।

বিষয়টি সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মেহেদী হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, নুরিনার বাবা বাদী হয়ে সদর থানায় ৬ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। এরপর অভিযান চালিয়ে বাটুল মিয়া ও তার ভাই আব্দুস সালামকে আটক করা হয়। অভিযুক্ত অপর তিন যুবককে গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান চলছে।

আরও পড়ুন

Tuesday, October 19, 2021

সর্বশেষ