ভোলার মেঘনা জাকির স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চায়

ভোলা প্রতিনিধি ॥ জাকির ওরফে মেঘনা জাকির, ওরফে বরিশালের জাকির। দীর্ঘদিন ধরে মেঘনা-তেতুলিয়া নদীতে জলদস্যুতার সাথে জড়িত হয়ে কাজ করে আসছে। জলদস্যু হিসেবে তার পরিচিতি রয়েছে। মেঘনা তেতুলিয়া নদীতে তার অবাধ বিচরন ছিল। এরই মধ্যে ভোলা সদর উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের ০৪নং ওয়ার্ডের সেলিম হাওলাদারের স্কুল পড়–য়া মেয়ের সাথে মোবাইলে প্রেমের সম্পর্কের মাধ্যমে দু’জনের মধ্যে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। তবে বাধ সাজে সেলিম হাওলাদার। তার মেয়ে অপহরন ও ধর্ষণের অভিযোগ এনে জাকিরের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে জেলা হাজতে পাঠায়। দীর্ঘ আড়াই বৎসর জেলে থাকাকালীন তার তদবির হয়নি। ফলে জেল হাজতেই থাকতে হয়েছে। এরই মধ্যে ভোলা-২ আসনের সাবেক এমপি হাফিজ ইব্রাহীমের আর্শিবাদপুষ্ট দৌলতখান উপজেলা বিএনপির এক নেতা রাজনৈতিক মামলায় জেলে গেলে জাকিরের সাথে তার পরিচয় হয়। এক পর্যায়ে ওই নেতা জাকিরকে অপরাধ জগৎ থেকে বেড়িয়ে আসার শর্ত সাপেক্ষে তাকে উচ্চ আদালতের মাধ্যমে জামিনে বের করান। জেল থেকে বেড়িয়ে জাকির আবারও অপরাধ জগতে জড়িয়ে পড়ে। সম্প্রতি জাকির ওরফে মেঘনা জাকির স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার কথা জানায়। সে এখন আর অপরাধ জগতের সাথে জড়িত নয় বলে দাবী করেছেন। জাকির হোসেন স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এসে ব্যবসা বানিজ্যের মাধ্যমে জীবন পরিচালনা করার কথা জানান। তাই সে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার জন্য প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছেন।

আরও পড়ুন

Tuesday, October 19, 2021

সর্বশেষ