ভোলায় ঘূর্ণিঝড়ে শতাধিক ঘর-বাড়ী বিধ্বস্ত ॥ জেলে নিহত ॥ আহত-৫

ভোলা প্রতিনিধি ॥ ভোলায় ঘূর্ণিঝড়ে শতাধিক ঘর বাড়ী বিধ্বস্ত হয়েছে। এতে এক জেলে নিহত এবং ৫ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গতকাল রোববার দুপুরের দিকে ভোলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়ায় ঝড়ে এ হতাহত হয়। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের লোকজন খোলা আকাশের নিচে আশ্রয় নিয়েছে।
সূত্রে জানা যায়, ভোলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া আকষ্মিক ঝড়ে সদরের কালাসুরা ও দরিরাম শংকর গ্রামের শতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এতে আহত হয়েছে অন্তত ৫ জন। অন্যদিকে তেঁতুলিয়া নদীতে মাছ ধরছিলেন সদর উপজেলার সদুরচর পাঙ্গাসিয়া এলাকার রিয়াজ (১৫) নামের এক মাঝি। নদীতে ঝড় শুরু হওয়ায় তিনি সেখানকার সাইমন ব্রিকস্ এর কাছে আশ্রয় নেন। এসময় ব্রিকস্ এর ঘরের চালের একটি টিন খুলে রিয়াজের পেটের উপর গিয়ে পরে। এতে রিয়াজের পেটের বেশিরভাগই কেটে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় রিয়াজকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঝড়ে বিধ্বস্ত পরিবারের লোকজন খোলা আকাশের নিচে আশ্রয় নিয়েছে।
ধনিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এমদাদ হোসেন কবির জানান, বিকেলে প্রচন্ড বাতাসের সঙ্গে হঠাৎ করেই ঘূর্ণিঝড় শুরু হয়। এতে মুহূর্তের মধ্যে দু’টি গ্রামের শতাধিক ঘর বিধ্বস্ত হয়।
স্থানীয় নাছির মাঝি এলাকার বাসিন্দা পল্লী চিকিৎসক মহিউদ্দিন জানান, ঝড়ে একটি মাদ্রাসাসহ অসংখ্য ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। এতে আহত হয়েছে অন্তত ৫ জন।
ভোলা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুজাইহিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরী করার মাধ্যমে সহায়তা প্রদান করা হবে।
এদিকে ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে ডা. মহিউদ্দিনের দোকান, খায়ের, আনিস, ইউসুফ, নুরু মাঝি, মোর্শেদ, হোসেন, সাইফুল, সবুজ, সুফিয়ান, মান্নান ও নবীর নাম পাওয়া গেছে। এছাড়াও একটি ব্র্যাক স্কুল ও একটি কওমি মাদ্রাসাও বিধ্বস্ত হয়েছে।

আরও পড়ুন

Wednesday, December 8, 2021

সর্বশেষ