নিষিদ্ধ বাধা জাল বসিয়ে জাটকা নিধন হয়, মামারা আছে পাশে নাই কোনো ভয় ।

কমলনগর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদীতে এখন নিষিদ্ধ কারেন্ট জালতো আছেই,তার চেয়ে  হাজার গুন্ বেশি ক্ষতিকর  বাধা জাল দিয়ে  ইলিশ সহ  নানা প্রজাতির বাচ্চা মাছ  শিকার করছে জেলেরা। বেশি লাভের আশায় জেলেরা এ নিষিদ্ধ বাধা জালের ব্যবহার করছে।

কমলনগর  উপজেলার বিভিন্ন মাছ ঘাট  গুড়লেই দেখা যায় নদীতে কারেন্ট জালের সাথে  বাধা জালের ব্যবহার দিন দিন বাড়ছে। জানা গেছে, কোস্টগার্ড, নৌ-পুলিশ ও মৎস্য বিভাগ নিয়মিত অভিযান চালালেও কারেন্ট জাল ও নিষিদ্ধ এ বাধা জালের ব্যবহার রোধ করা যাচ্ছে না।
মেঘনা পাড়ের কারেন্ট জাল ব্যবহারকারী সাধারণ জেলেদের ক্ষোভ, আমাদের ধাওয়া করে, জাল পুড়িয়ে ধ্বংস  করে এবং জেল-জরিমানা করে হয়রানি করছে বাধা জালেরতো কিছু হয়না । একটা বাধা জাল আমাদের ১০০০ কারেন্ট জালের সমান মাছ ক্ষতি করে । লুধুয়া  মাছ ঘাট  গুড়লেই দেখা যায় জেলেরা অনেক গুলো  বাধা জাল দিয়ে  ইলিশ সহ নানা প্রজাতির বাচ্চা মাছ  শিকার করছে ।

একজন সাধারণ জেলে বলেন ,আমাগো জেলে কার্ডে ৪০ কেজি চাউলের মধ্যে ৩০ কেজি দেয় জানাইলে কিছু হয় না,এটাও কিছু  হইবোনা,কারণ বাধার কথা উপর মহল পর্যন্ত জানে ।

সচেতন মহলের মন্তব্য ও জিজ্ঞাসা কারা  সেই উপর মহল, কমলনগরে  কোস্টগার্ড ছিলোনা জেলেরা  বাধায় মাছ ধরতো, এখন আছে  মাছ ধরছে, তাহলে আমরা সুফল দেখলাম কোথায় । ( ১ম পর্ব)

 

 

আরও পড়ুন

Sunday, November 28, 2021

সর্বশেষ