জেলে বসে প্রেমিকার মাধ্যমে ইয়াবার ব্যবসা চালাচ্ছে ভোলার মাদক সম্রাট  সফিজল

ভোলা প্রতিনিধি : ভোলার আলোচিত ইয়াবা ব্যবসায়ী মাদক সম্রাট সফিজল গত শুক্রবার পুলিশের হাতে আটক হয়ে জেল হাজতে গিয়েও তার ইয়াবার ব্যবসা চালাচ্ছে পুরোদমে। তথাকতিথ পরোকীয়া প্রেমিকা বিতর্কিত নারী রেখা বেগম তার ব্যবসা চালাচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, ভোলার উওর দিঘলদী ইউনিয়নের চরকুমারিয়া গ্রামের ছিদ্দিক করাইর ছেলে সফিজল বিগত কয়েকবছর ধরেই সফলতার সাথে মাদক ব্যবসা করে আসছে। এক সময়ে রিকসা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করলেও ইয়াবা ব্যবসায় বদলে দিয়েছে তার ভাগ্যের চাকা। এখন সে লাখোপতি। ইতিমধ্যে সফিজল কয়েকবার জেলহাজতে গেলেও আইনের চোখ ফাকি দিয়ে জামিনে বের হয়ে আবার মাদক ব্যবসা চালাত নির্ভয়ে।
স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি জানান, সফিজল অত্যন্ত দুরন্তর ব্যক্তি । রিকসা চালক থেকে ইয়াবা ব্যবসায়ী । পুলিশের তালিকায় তার নাম জোরালো আলোচনায় থাকলেও তাদের চোখে ফাঁকি দিয়ে প্রতিনিয়ত  সে এই মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছে। এদিকে সম্প্রতি সফিজল তার ব্যবসার কথা ভেবে পাশ্ববর্তী এক কাঠ ব্যবসায়ীর স্ত্রী রেখা বেগমের সাথে অবৈধ সম্পর্ক তৈরি করে তার মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে ইয়াবার বড় বড় চালান এনে দু’জনেই পাইকারি ও খুচরা বিক্রি করত। এবার বিতর্কিত সেই নারী রেখা বেগমকে বাগিয়ে এনে কতিথ স্ত্রী বানিয়ে তার মাধ্যমে পুরো ব্যবসাই নিয়ন্ত্রণ করছে। তাই জেলে গিয়েও রেখার মাধ্যমে ইয়াবার ব্যবসা চালাচ্ছে সফিজল । বর্তমানে রেখা তার পিতার বাড়ি আলীনগর এলাকায় অবস্থান নিয়ে মামলার তদবির ও মাদক ব্যবসা চালাচ্ছে বলে জানাগেছে ।
ভোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মীর খায়রুল কবির জানান, মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে। রেখা বেগমকে পাওয়া যায়নি।
উল্লেখ্য,গত কয়েকবছর পূর্বে বিতর্কিত নারী রেখা বেগম ও তার বোন জোসনার মিথ্যা মামলা ও অত্যাচারের হাত থেকে বাচতে শতশত নারী পুরুষ ঘুইংগারহাট বাজারে মানববন্দ্ধন করেছে। কয়েকবছর  পালিয়ে থেকে আবার তারা অপকর্ম চালাচ্ছে ।

আরও পড়ুন

Sunday, November 28, 2021

সর্বশেষ