ময়না তদন্ত ছাড়াই দাফন রামগতিতে ২য় শ্রেনীর ছাত্রীর গলিত লাশ উদ্ধার

রামগতি (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে কুলছুমা (১০) নামের এক শিশুর গলিত লাশ উদ্ধার করার খবর পাওয়া গেছে।
কুলছুমা চর আলগী ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড চর হাসান হোসেন গ্রামের দানু মিয়াগ বাড়ীর আ: কাদেরের মেয়ে।
স্থানীয়সূত্রে জানা যায় ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে কাদেরের ছেলে রিপনের সাথে বশির ডাক্তারের বাড়ীর বাবুলের ছেলে রনির বিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে রিপন ক্রিকেট ব্যাট ছুড়ে মারে রনিকে। ব্যাটের আঘাতে রনির কপালের সামান্য থেতলে গিয়ে রক্ত বের হয়। ঐ সময়ে উত্তেজিত রনির বাবা বাবুল, চাচা নয়ন, রিয়াজ, রুবেলসহ অন্যান্যরা রনির রক্তের প্রতিশোধ হিসেবে কাদেরের পরিবারের যে কাউকে এর জন্য চরম মূল্য দিতে হবে বলে হুমকি দেয়। কাদেরের পরিবারের লোকজন রনির পরিবারকে স্বাতœনা দেবার চেষ্টা করলে তাদের হুমকি ধমকি দিয়ে বের করে দেয় এবং তাদেরকে দেখে নেবার হুমকি দেয়।
এই ঘটনার পর গত রোববার (১৪ মে) বশির ডাক্তার বাড়ীর একটি বিয়ের অনুষ্ঠান দেখতে যায় কুলছুমা। সেই থেকে নিখোজ হয় সে। অনেক খোজাখুজি করে তাকে কোথাও পাওয়া যায় নাই বলে তার পরিবারের লোকজন জানায়।
গত শনিবার (২০ মে) স্থানীয় পলি নামের এক শিশু স্কুল থেকে বাড়ী ফেরার পথে কুলছুমাদের ঘরের কাছে পরিত্যক্ত বাড়ীর ঝুপড়ীর ভেতর কুকুর শিয়ালে টানাটানি করতে থাকা অর্ধগলিত লাশ দেখতে পেয়ে সে শোর চিৎকার দেয়। এ সময় স্থানীয়রা এগিয়ে এসে থানায় খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গলিত হাত পা ওড়না দিয়ে বাঁধা লাশটি উদ্ধার করে। কুলছুমার পরিবারের লোকজন তা কুলছুমার লাশ বলে সনাক্ত করে।
স্থানীয়দের আশংকা রনির চাচা রুবেল সহ সন্ত্রাসীরা কুলছুমাকে নির্যাতনের পর তাকে নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়েছে।
এ বিষয়ে থানা অফিসার ইনচার্জ মো: ইকবাল হোসেন বলেন, লাশটি চরম বিকৃত হওয়ায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও গন্যমান্যদের উপস্থিতিতে লাশ দাফন করার কথা বলেছি। এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেবো।
কুলছুমার পরিবারের লোকজন জানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

আরও পড়ুন

Sunday, November 28, 2021

সর্বশেষ