ভোালার লালমোহনে মায়ের হাতে মেয়ে খুন ॥ বাবা, মা, বোনসহ আহত-৩

ভোলা প্রতিনিধি ॥ ভোলার লালমোহনে মায়ের হাতে রুপা নামের (৭) বছরের এক শিশু কন্যা খুন হয়েছে। এসময় মেয়ের দায়ের কোপে বাবা, মা ও ছোট বোনসহ ৩ জন গুরুতর আহত হয়। ০৩ জুলাই সোমবার রাত ৯টার দিকে লালমোহন উপজেলার চরভূতা ইউনিয়নের রহিমপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, লালমোহন উপজেলার রহিমপুর গ্রামের লন্ড্রি কামাল বাড়ির কামালের মেয়ে রুনা বেগম (২৫) সোমবার রাতে হঠাৎ করে নিজের সন্তান রুপা বেগম, বাবা কামাল, মা রেনু বেগম ও ছোট বোন তানিয়াকে দা ও বটি নিয়ে এলোপাতারি কোপাতে থাকে। রুনা বেগমের বড় মেয়ে রুপা বেগম ঘটনাস্থলেই নিহত হয়।
এসময় ছোট ছেলে তামিম (২) কেও কোপাতে গেলে রুনা বেগমের বাবা কামাল ও মা রেনু বেগম তাকে উদ্ধার করে। ঘটনাস্থলে ডাক চিৎকার শুনে পাশ্ববর্তী লোকজন গিয়ে রুনা বেগমকে আটক করে বেঁধে রাখে। পরে গুরুতর আহত রুনা বেগমের বাবা কামাল, মা রেনু ও ছোট বোন তানিয়াকে লালমোহন সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
আহত কামাল হোসেন জানান, মেয়ের সাথে কিছু ছিল। যার কারণে সে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। নিহত শিশু রুপা প্রতিবন্ধী ছিল বলে তার নানা জানায়।
খবর শুনে লালমোহন সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মো: রফিকুল ইসলাম, ওসি (তদন্ত) মো: শাখাওয়াত হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার এবং রেনু বেগমকে আটক করেন।

আরও পড়ুন

Sunday, November 28, 2021

সর্বশেষ