কমলনগরে পাওনা টাকা চাওয়ায় এক যুবককে প্রকাশ্যে নির্যাতন

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে চর কাদিরা ইউপি সদস্য আকরাম হোসেন সায়েদের বিরুদ্ধে চুরির অপবাদ দিয়ে যুবককে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে ফজুমিয়ার হাট বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

আহত যুবকের নাম মো. রিয়াজ (৩০)। সে কাদিরা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের তোফায়েলের ছেলে। পুলিশ আহত রিয়াজকে উদ্ধার করে কমলনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

স্থানীয়রা জানায়, স্থানীয় ইউপি সদস্য সায়েদ মেম্বারের কাছে রিয়াজ দুই হাজার দুইশ’ টাকা পায়। সে টাকা চাওয়ায় চুরির অপবাদ দিয়ে মেম্বারের ভাই জাবেদসহ কয়েকজন তাকে হাত-পা বেঁধে বেধড়ক লাঠিপেটা ও নির্যাতন করে।

আহত রিয়াজ জানান, দুপুরে স্থানীয় ইউনিয়নের পরিষদের পাশে মনির মাঝির দোকানে বসা ছিলাম। এ সময় সায়েদ মেম্বারের ভাই জাবেদ, রাশেদ আমাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে ফজুমিয়ার হাট বাজারের মা গার্মেন্টেসের ভেতর নিয়ে হাত পা বেঁধে বেধড়ক লাঠিপেটা করে। পরে সায়েদ মেম্বার এসে আমাকে চড়-থাপ্পর ও লাঠিপেটা করে।

মা গার্মেন্টসের মালিক ইসমাইল জানান, সে জুমার নামাযের পর আমার দোকানে চুরি করতে আসলে তাকে ধাওয়া করি। জাবেদ তাকে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের কাছ থেকে ধরে নিয়ে আসে।

স্থানীয় ইউপি মেম্বার আকরাম হোসেন সায়েদ জানান, ফজুমিয়ার হাট বাজারে মা গার্মেন্টসে চুরি করার সময় তাকে হাতেনাতে ধরা হয়েছে। তাকে মারধরের বিষয়টি সঠিক নয়। সে আমার কাছে কোন টাকা পায় নাই।

কমলনগর থানার উপ পরির্দশক পরিদর্শক (এসআই) মো. ছায়েদের রহমান জানান, খবর পেয়ে রিয়াজকে উদ্ধার করে কমলনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন

Wednesday, December 8, 2021

সর্বশেষ