লক্ষ্মীপুরের রামগতির মডেল পাইলট হাইস্কুলে ভয়াবহ দূর্নীতি ও লুটপাট

রামগতি, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের রামগতির আলেকজান্ডার মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আজিজুল ইসলামের চাকুরীর মেয়াদ শেষ হয়েছে গত ২৪ জুন ২০১৫ ইং। সে মোতাবেক ২২ জুন ২০১৭ জাতিয় দৈনিকে প্রধান শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে স্কুল কর্তৃপক্ষ।
স্কুলসূত্রে জানা যায় প্রধান শিক্ষক নিয়োগের আবেদন জমা পড়েছে ১৭টি।
জানা যায় প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক আজিজুল ইসলামের চাকুরীর মেয়াদ শেষ হওয়ার পর বিধি মোতাবেক রেজুলেশনের মাধ্যমে উক্ত পদ শুন্য ঘোষনা না করে এবং সহকারী প্রধান শিক্ষকের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর না করে তিনি নিজেই উক্ত পদে বহাল থেকে হাজিরা খাতায় অদ্যবধি পর্যন্ত সই স্বাক্ষর দিয়ে নিজের পছন্দের লোককে নিয়োগ দেয়ার মারষে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।
স্কুল ম্যানেজিং কমিটির অনির্বাচিত সদস্যরা সম্পূর্ণ বে- আইনিভাবে তার চাকুরীর মেয়াদ বৃদ্ধি করে। তার কার্যকালে স্কুলের লেখাপড়া, পরিবেশ, স্কুলের সহায় সম্পত্তি ও ঘর ভাড়ার টাকা লুটপাট, সবকিছু বিপর্যস্ত করে হরিলুটের ঘটনা ঘটেছে।
যে ম্যানেজিং কমিটি প্রধান শিক্ষকের মেয়াদ বৃদ্ধি করেছিলো সেই কমিটিও পকেট কমিটি। ক্ষমতাসীনদের ব্যবহার করে রাতের অন্ধকারে এসএমসির কমিটি অনুমোদন করা হয়। স্থানীয় সংসদ সদস্যর নিকটাতœীয় পরিচয় দিয়ে এবং স্কুল সভাপতির ভাগিনা প্রধান শিক্ষক আজিজ তার মেয়াদ বৃদ্ধির দুই বছরে একটি সিন্ডিকেট তৈরি করে পাইলট হাইস্কুলকে মহা লুটপাটের আখড়ায় পরিণত করেন বলে জানা যায়।
তিনি স্কুলের পুকুরটি ইজারা না দিয়ে সিন্ডিকেট ঠিক রাখার জন্য স্কুলকে আয় বঞ্চিত করে ম্যানেজিং কমিটিতে তার পছন্দের লোককে মাছ চাষ করার জন্য দিয়ে দেন। স্কুলের প্রায় ২০ টি দোকান ঘর ভাড়া দিয়ে প্রতিমাসে ৫০/৬০ হাজার টাকা আয় হলেও তা স্কুল ফান্ডে জমা হয়না। অতিলোভে আবার ঘর ভাড়া দিয়েছেন ওয়েল্ডিং ওয়ার্কশফকে। যারা রাস্তার উপরে কাজ করে ছড়িয়ে দিচ্ছেন মারাতœক রেডিয়েশন। পুরনো লোহার গ্যার্নিয়ের ফলে পুরো এলাকায় ছড়িয়ে দিচ্ছেন ধারালো লোহার টুকরো। তাদের লোভে কয়েক হাজার শিক্ষার্থী ভয়াবহ ঝুকির মধ্যে দিয়ে স্কুল কলেজ মাদ্রাসায় আসা যাওয়া করতে হচ্ছে। যার ফলে প্রতিনিয়িত ঘটছে দূর্ঘটনা। তিনি টেন্ডার ছাড়াই স্কুলের গাছ কেটে নিয়ে যান এবং ঐ গাছের কিছু অংশ আবার তার পছন্দের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যকে দিয়ে দেন।
স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আমজাদ হোসেনের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন, স্থানীয়ভাবে ম্যানেজ করে প্রধান শিক্ষক ফিরোজের মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়েছে। তিনি সভাপতির ভাগিনা বিধায় প্রভাব খাটিয়ে নানান দূর্নীতি ও অনিয়ম করে আসছে।(পর্ব -0১)

আরও পড়ুন

Sunday, November 28, 2021

সর্বশেষ