ভোলায় জমির বিরোধে এক নারীর মুখে জোর পূর্বক বিষ ঢেলে হত্যার অভিযোগ

ভোলা প্রতিনিধি ॥ ভোলা সদর উপজেলার উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নের চরকুমারি গ্রামের ০১নং ওয়ার্ডের খুনিয়া বাড়ীতে জমা-জমির বিরোধ নিয়ে রাশেদা বেগম (৫০) এক নারীর মুখে জোর পূর্বক বিষ ঢেলে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দিবাগত রাত অনুমান ১ টার সময়। নিহতের স্বামী আব্দুর রব জানান, একই বাড়ীর বাসিন্দা নাছির খুনিয়ার সাথে বসতবাড়ির টয়লেটের ময়লা পানি নিষ্কাশন নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। শুক্রবার ৪ টার সময় নাছির খুনিয়া টয়লেটের ময়লার পানি আমার পুকুরের মধ্য দিয়ে নিষ্কাশন করে। এ নিয়ে আমার স্ত্রী রাশেদা বেগম প্রতিবাদ করলে নাছির খুনিয়া ও তার স্ত্রী তাছনুর বেগম সহ আরো কয়েকজন মিলে আমার স্ত্রীকে এলোপাথারী মারধর ও কিল-ঘুসি ও টানা হেছরা করতে থাকে। আমার স্ত্রী উপায়ন্তর না পেয়ে বাচার জন্য ঘরে আশ্রয় নিতে চাইলে সিড়িতে ফেলে চুলের মুষ্টি ধরে তারা ব্যাপক আঘাত করতে থাকে। আমার স্ত্রীকে রক্ষা করতে আমার দুই মেয়ে এগিয়ে আসলে তাদেরকেও তারা মারধর করে। বিকেল ৪টার দিকে মারধর করেই তারা ক্ষান্ত হয়নি। রাত ১১ টার দিকে তারা পূনারায় আমি ও আমার ছেলে মাকসুদ আলমকে মারধর করার জন্য খুজতে থাকে। এসময় আমি ও আমার ছেলেকে বাড়ীতে না পেয়ে এই বলে হুমকি দিয়ে যায় যে, আজ রাত্রের মধ্যেই তোদের শিক্ষা দিয়ে দিব। আব্দুর রব আরো জানায়, পূনরায় রাত অনুমান ১ টার সময় নাছির খুনিয়া ও তার স্ত্রী তাছনুর বেগম আমাদের ঘরের পিছনের দরজা ভেঙ্গে কৌশলে ঘরে ঢুকে আমার স্ত্রীর মুখে জোর পূর্বক বিষ ঢেলে দিয়ে চলে যায়। কিছুখন পর আমার স্ত্রীর গোংরানির শব্দ পেয়ে আমার ছোট ছেলে ও মেয়ে এবং পুত্র বধুর আত্মচিৎকারে লোকজন জরো হলে আমাদেরকে ফোনে খবর জানায়। আমরা বাড়ীতে এসে এম্বুলেন্স যোগে ভোলা সদর হাসপাতালে রাত ৩টার সময় নিয়ে আসি। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৯/০৭/২০১৭ইং তারিখ দুপুর ১ টার সময় ভোলা সদর হাসপাতালে আমার স্ত্রীর মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় ভোলা সদর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন

Wednesday, December 8, 2021

সর্বশেষ