ভোলার মনপুরার জেলে অপহরণ ॥ মুক্তিপণ দাবী

ভোলা প্রতিনিধি ॥ ভোলার মনপুরার চরনিজাম সংলগ্ন মেঘনায় জেলে ট্রলারে হামলা চালিয়ে ১ জেলেকে অপহৃত করে নিয়ে গেছে হাতিয়ার জলদস্যু বাহিনী। মঙ্গলবার ভোর রাতে ১০/১৫ জনের সংঘবদ্ধ জলদস্যু বাহিনী জেলেদের উপর এই হামলা চালায়। অপহৃত জেলে পরিবারের কাছে ৩ লক্ষ টাকা মুক্তিপন দাবী করেছে দস্যুরা। অপহৃত জেলে উদ্ধারের জন্য পুলিশ প্রশাসন চেষ্টা করে যাচ্ছেন বলে পরিবার সূত্রে জানা গেছে।
ঘটনা ও স্থানীয় জেলেদের সূত্রে জানা গেছে, প্রতিদিনকার ন্যায় আবু তাহের মাঝি চরনিজাম সংলগ্ন মেঘনায় ইলিশ মাছ ধরার জন্য মেঘনায় জাল ফেলে। জাল টানা শেষে পর্যায়ে তারা দেখতে পায় একটি বড় ফিসিং বোটে ১০/১৫ জনের একদল জলদস্যু বাহিনী অস্ত্র তাক করে তাদের ঘিরে ফেলে। হাতিয়ার জলদস্যু বাহিনী আবু তাহের মাঝির জেলে ট্রলারে হামলা চালায়। এই সময় দস্যু বাহিনী ট্রলারে থাকা জেলেদের বেধড়ক মারধর করে আবু তাহের মাঝিকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এছাড়াও দস্যু বাহিনী ওই সময় মাছ ধরা অবস্থায় অন্যান্য ট্রলারে হামলা চালানোর খবর পাওয়া গেছে। অপহৃত জেলে উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের চরফৈজুদ্দিন গ্রামের ৮ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবু তাহের মাঝি।
অপহৃত মাঝির আড়তদার জানান, মেঘনায় ইলিশ শিকারের সময় হাতিয়ার জলদস্যু বাহিনী হামলা চালিয়ে আবু তাহের মাঝিকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। মাঝির পরিবারের কাছে মোবাইল ফোনে ৩ লক্ষ টাকা দাবী করছে জলদস্যুরা। এছাড়াও এই ঘটনা ও মোবাইল নাম্বার পুলিশকে জানালে আবু তাহের মাঝিকে মেরে ফেলার হুমকি দেন জলদস্যুরা। ভয়ে কোন জেলে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেনা। জলদস্যুদের ভয়ে জেলেরা আতংকে আছেন। প্রশাসনের কাছেও মুখ খুলতে নারাজ জেলেরা।
মনপুরা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহীন খান জানান, জেলে ট্রলারে হামলা ও অপহরনের ঘটনা শুনেছি। অপহৃত জেলেকে উদ্ধারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এই রির্পোট লেখা পর্যন্ত অপহৃত জেলেকে এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

আরও পড়ুন

Thursday, January 27, 2022

সর্বশেষ