জলঢাকায় স্বাধীনতার ৪৬ বছরেও গেজেট জোটেনি মুক্তিযোদ্ধা নু্ুরুল ইসলামের।

জলঢাকা ,নীলফামারি প্রতিনিধি : যাদের ত্যাগ সেবায় পেয়েছি এদেশ। অথচ এমন একটি পরিবারই হুমকির মুখে নীলফামারীর জলঢাকায়। অভিযোগ পত্রের বিবরনে জানা যায়, উপজেলার শৌলমারী ইউনিয়নে মাস্টার পাড়ায় মুক্তি যোদ্ধা নুরুল হেকিমের বাড়ী। অর্থের কারনে প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রাদী থাকার পরেও একদিকে যেমন মেলেনি গেজেট অন্য দিকে পরিবারটি মিথ্যা মামলা হুমকির মুখে দিনাতিপাত করছে অতি কষ্টে । মুক্তি যোদ্ধা নুরুল হেকেমিরে অর্নাস পড়ুয়া মেয়ে জানায় স্বাধীনতার ৪৬ বছর পেরিয়ে গেলেও এখনো মুক্তি যোদ্ধা গেজেট তালিকায় অন্তরভুক্ত হয় নি। তার পিতা নুরুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি জানান আমি স্বাধীনতা যুদ্ধে পাট গ্রামের ০৬ নং সেক্টরের অধিনে কোম্পানী কমান্ডার আশরাফ হোসেন এর নেতৃত্বে দেশ মাতৃকার সংগ্রামে স্বাধীনার যুদ্ধে জাতির জনক বঙ্গ বন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে দীর্ঘ্য ৯ মাস পাকা বাহীনির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করি। ফলশ্রুতিতে যুদ্ধ কারী পাক বাহীনি আমার বাড়ী ঘর জ্বালীয়ে দেয়।
তা এলাকা বাসী সকলে জানে। দূভাগ্য এখন আমি গরিব বলে মুক্তি যোদ্ধা গ্রেজেট তালিকায় নাম অন্তর ভুক্ত করতে পারি নি অর্থের অভাবে। তিনি আরও জানান আমার প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রাদী প্রেরণ করেছি জলঢাকা উপজেলার মুক্তি যোদ্ধাকমান্ডার মোঃ হামিদুর রহমান কে। কমান্ডা র হামিদুরের  সাথে কথা হলে তিনি জানান আমাদের পক্ষে যে সকল কাজ করা প্রয়োজন আমরা সে গুলো করেছি বাকি টা মন্ত্রানালয় এর বিষয় ।
এ দিকে পরিবার টির সাথে কথা হলে তারা জানান অর্থ না থাকলে কোন কাজ এ হয় না। দেশের জন্য যুদ্ধ করে বা কি পেলাম? টাকা দিতে না পারায় হবে হবে বলে কাজটি আর হয় না অথচ কমান্ডার বলেছিলেন গ্রেজেট ভুক্তির যাবতীয় তিনি পালন করবেন কিন্তু কাজটি করেন আর না।

আরও পড়ুন

Thursday, January 27, 2022

সর্বশেষ