অালীকদম থানছি উপজেলায় অাবারও পাচার হচ্ছে বিভিন্ন বিরল প্রজাতীর বন্য প্রাণী ।

চাইথোয়াইমং মারমা রুদ্র জেলা প্রতিনিধি বান্দরবান : ১৩/১১/১৭ ইং তারিখে রোজ সোম অালীকদমে সরেজমিনে গিয়ে তদন্ত করে দেখা যায়।মেসার্স ক্রেটিভ কন্সারভেসন প্রতিষ্ঠান নামে ২০১১ ইং সাল হতে অালীকদমে ভুয়া করুকপাতা ইউনিয়ন পরিষদ অফিসের পাশে একটি কক্ষে ভাড়া করে উপজেলায় শাখা অফিস নামে সরকারী অনুমোদনবিহীন বিভিন্ন কার্য্যক্রম চালিয়ে যাচছে।

অালীকদম ও থানছি উপজেলায় মাতামুহুরি ও সাংগু রিজার্ব রক্ষিত এলাকায়।অত্র প্রতিষ্ঠাননের কর্মচারী মি:পাছিং ম্রো নিরক্ষর জাহহনান অামরা শাহরিয়া সিজার নির্দেশে বন্য প্রাণী সংগ্রহসহ বিভিন্ন  কাজগুলি  সম্পাদন করে।যা পাবর্ত্য চট্রগ্রামের প্রাকৃতিক পরিবেশ বিপর্যয়গ্রস্ত অাদিবাসী দের জীবনমান ন স্ট ক্ষতি হওয়ার সম্ভবনা ঝুকি বেশি হতে পারে।পাহাড়ের বন্য প্রাণি থেকে শুরু করে বিভিন্ন বনের বন্যপ্রাণী সহ বনজগাছ নামীদামী গাছ হারিয়ে বিলুপ্ত পথে।যা সরেজমিনের মাঠে না দেখলে বুঝতে পারবে না।অত্র অালীকদম অফিস নামে্র পরিচালিত যাবতীয় কাগজপত্র দেখাতে ব্যর্থ হয়।এবং সিজারকে বার বার কাগজপত্র দেখানোর জন্য অনুরোধ করলে ২৬/১১/১৬ ইং সালে মেয়াদবিহীন বন ও বনের সম্পদ সংরক্ষণের নামে বিভাগীয় বন কর্মকর্তা কর্তৃক স্বাক্ষরিত একটি মাত্র কাগজ পত্র দেখানো সম্ভব হয়।তাতে বোঝা যায় তিনি(সিজার) নিস্চয় কূকর্মের উদ্দেশ্যে তার কার্যক্রমগুলো করতে যাচ্ছে।

তাই এলাকার স্থানীয় গনমান্য ব্যত্তি ও ছাত্র সমাজ জোর দাবী করেন। শাহরিয়া সিজার অাসল কর্ম  পরিচয়  ও উদেশ্য উধঘাটন করে প্রশাসনের সহায়তা চেয়েছেন স্থানীয় অত্র এলাকায়বাসী।

আরও পড়ুন

Wednesday, September 22, 2021

সর্বশেষ