“জয় বাংলা স্লোগান” দেয়ায় ভোলায় ছাত্রকে পেটালো শিক্ষক

ভোলা প্রতিনিধি ॥ “জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু” স্লোগান দেওয়ায় ভোলা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে স্কুলের শারীরিক শিক্ষার শিক্ষক মমিন মুন্সীর বিরুদ্ধে। এই ঘটনার প্রতিবাদে রোববার সকালে স্কুলের শিক্ষাথীরা ক্লাশ বর্জন করে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করে।
এসময় শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, শনিবার সকালে ভোলা জেলা প্রশাসনের আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর ৯৮ তম জন্ম বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষ্যে শিশু সমাবেশ ও র‌্যালীতে সরকারি স্কুলের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহন করেন। এসময় স্কুলের ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী অশিকসহ আরো অনেকে বঙ্গবন্ধুকে স্বরণ করে “জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু” স্লোগান দেয়। এসময় স্কুলের শারীরিক শিক্ষার শিক্ষক মমিন মুন্সী ক্ষিপ্ত হয়ে র‌্যালির মধ্যেই ওই শিক্ষার্থীকে ব্যাপক মারধর ও শারীরিক নির্যাতন করে। পরে তাকে স্কুল থেকে টিসি দেয়ারও হুমকী প্রদান করেন অভিযুক্ত শিক্ষক।
আহত ছাত্রের অভিবাবক জানান, ভোলা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৮ম শ্রেণীর ছাত্র আশিক মাহামুদ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানে জন্ম বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আয়োজিত র‌্যালীতে অন্যান্য ছাত্রের সাথে সেও অংশ নেয়। র‌্যালীটি বাংলা স্কুল মোড় এলাকায় গেলে অন্যান্যদের সাথে ওই ছাত্রও জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু স্লোগান দেয়। এতে করে বিদ্যালয়ের শরীর চর্চা শিক্ষক মোমিন মুন্সি ক্ষিপ্ত হয়ে তার মাথায় ও কানে জোরে চর থাপ্পর মারে। এমনকি তাকে লাথি দিয়ে মারাত্মক আহত করে। এতে করে তার মাথায় ও কানে আঘাত পায়। এসময় তার ঘড়ি ভেঙ্গে ফেলে ওই শিক্ষক। র‌্যালী শেষে করে সকল ছাত্রের সাথে আশিক স্কুলে গেলে তাকে নাস্তা দেয়া হয়নি। পরে আশিক স্কুল থেকে বাসায় গেলে কয়েক বার বমি করে। এ ঘটনায় ভোলা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শংকর পালের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ওই ছাত্র র‌্যালীতে জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করায় তাকে মারধর করা হয়েছে। তিনি উভয় পক্ষের বক্তব্য শুনেছেন। ঘটনাটির তদন্তের জন্য একটি কমিটি গঠন করে ঘটনার সঠিক বিচারের আশ্বাসও দেন প্রধান শিক্ষক।

আরও পড়ুন

Wednesday, September 22, 2021

সর্বশেষ