মাঠ নিয়ন্ত্রণে তৃণমুলে গণসংযোগে ব্যস্ত এমপি আলী আজম মুকুল

ভোলা প্রতিনিধি : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে মাঠের জনগণের সাথে নিজের  নিবির সম্পর্ক বজায় রাখতে তৃণমুলে গণসংযোগ, পদসভা, উঠান বৈঠক ও সামাজিক কর্মসুচি বাস্তবায়নের মাধ্যমে রাজনীতির মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন
ভোলা-২ আসনের উদীয়মান তরুণ সংসদসদস্য আলী আজম মুকুল।জনগণের সাথে বন্ধন অটুট রাখতে ঢাকায় গুরুত্বপূর্ণ কাজ সেরেই আবার পাড়ি জমান নিজ নির্বাচনী এলাকা দৌলতখান – বোরহানউদ্দিনের জনগণের মাঝে । আর তার এই কর্মকান্ডে দারুন খুশি সাধারণ জনগণও। প্রতিনিয়ত তৃণমুলে দৌরঝাঁপের ফলে তিনি এখন বেশ জনপ্রিয় নেতা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন।  দৌলতখান উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নের সাধারণ জনগণের সাথে কথা বলে জানাগেছে, আলী আজম মুকুল এমপির মহতী উদ্দোগের কথা। তারা জানান, মুকুল ভাই ইতিমধ্যে  ঘনবসতিপূর্ণ বাড়িতে গভীর নলকুপ স্থাপন, ঘাটলা নির্মান ও অবহেলিত রাস্তা সংস্কারসহ বিভিন্ন উন্নয়নমুলক কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করে মানুষের মন জয় করে নিয়েছেন। এসব কর্মকান্ডে বিশেষ করে গ্রাম গঞ্জের সাধারণ নারীরা তার প্রতি কৃতঞতা প্রকাশের পাশাপাশি তাকে আগামী নির্বাচনে ভোট দেয়ারও অঙ্গীকার করছেন। এদিকে রবিবার ২৫ মার্চ সকালে ঢাকা থেকে দৌলতখান -বোরহানউদ্দিনে ৬ দিনের সফরে আসেন আলী আজম মুকুল। এ সময় তাকে প্রায় তিন শতাধিক মটরসাইকেলযোগে  শোবাযাত্রার মাধ্যমে নেতা-কর্মীরা রিসিভশন দেন। বোরহানউদ্দিনে যাওয়ার পথে ওই দিন সকালে আলোচিত ঘুইংগার হাট বাজারে এক সংক্ষিপ্ত পথসভা অনু্ষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে আলী আজম মুকুল জনতার উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন। এ সময় প্রায় শহস্রাধিক জনগণ উপস্থিত ছিলেন। স্থানীয়রা জানান, ওই ঘুইংগার হাট বাজার একসময়ে বিএনপি দলীয় সাবেক এমপি হাফিজ ইব্রাহীমের নেতা-কর্মীদের নিয়ন্ত্রণে ছিল। কিন্তু আলী আজম মুকুলের রাজনৈতিক দুরদর্শীতা, বিচক্ষণতা, সততা ও হাস্যজ্জোল বিনম্র আচরণের ফলে সেই ঘাটি এখন তার নিয়ন্ত্রণে চলে আসল।দৌলতখান উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোতালেব হোসেন সবুজ জানান,  মুকুল ভাই হচ্ছে দক্ষিণাঞ্চলে আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে ব্রান্ড। তার ব্যক্তি ইমেজ এখন আমাদের  দল এবং সংগঠনের জন্য অনুকরণীয়। তার দীর্ঘ মেয়াদী  পরিকল্পনায় আ:লীগ এখন সুসংগঠিত। তাকে ঘিরেই আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সকল প্রুস্তুতি চলছে। দক্ষিণ জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদের ২ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নাজিম উদ্দিন  শিপন জানান, আলী আজম মুকুল ভাই সংসদসদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে দলমত নির্বশেষে মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। বিএনপি কিংবা অন্য কোন দলের সমর্থিত লোক যে কোন বিষয়ে তার কাছে গেলে তিনি সহজেই সমাধান করে দেন। তৃণমুলের মানুষ এরকম একজন এমপি পেয়ে ভীশণ খুশি। তাই আগামী নির্বাচনে মুকুল ভাই বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন বলে জনগণ বিশ্বাস করেন।

আরও পড়ুন

Wednesday, September 22, 2021

সর্বশেষ