ভোলার লালমোহনে আগুনে পুড়ে ছাই ১৬ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান

ভোলা প্রতিনিধি ॥ ভোলার লালমোহনে উপজেলার গজারিয়া বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১৬ টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে প্রায় কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা জানায়। শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে বৈদ্যুতিক সর্ট সার্কিট থেকে এই অগ্নিকান্ডের সুত্রপাত হয় বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করছে ফায়ার সার্ভিসের ভোলা জেলা উপ সহকারি পরিচালক মো. বেলাল উদ্দিন ও স্থানীয়রা।
গজারিয়া বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সেলিম ব্যাপারী জানান, শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে গজারিয়া বাজারের দক্ষিণ মাথায় টেম্পু স্ট্যান্ড এলাকায় একটি দোকান থেকে বৈদ্যুতিক সর্ট সার্কিটের মাধ্যমে অগ্নিকান্ডের সুত্রপাত হয়। মুহুর্তের মধ্যে আগুনের তান্ডব ছড়িয়ে পরে পাশ্ববর্তী ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে। এসময় বাজারের সকলে জুমা’র নামাযে দাঁড়ানো ছিলো। নামায শেষে স্থানীয়রা ও লালমোহন এবং চরফ্যাশন ফায়ার সার্ভিসের ৩ টি ইউনিটের কর্মীরা এসে প্রায় পৌনে এক ঘন্টার চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো হলো, সবুজরে কনফেকশনারী, কামালের মুদি দোকান, সুরেশের জুতার দোকান, শাহিনের পেট্রোলের দোকান, জাফরের পার্টসের দোকান, অসীমের হোন্ডার গ্যারেজ, আনোয়ার, মনির ও খোকনের চায়ের দোকান, টুটুলের মোবাইল ফোনের দোকান, শ্যামল ও কনকের সেলুনের দোকান, কামর”লের ভাতের হোটেল ও শাহে আলমের ফলের দোকান, সবুজের মেকানিক্স, সাহেদ আলীর পানের দোকান। এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো সম্পন্নভাবে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন, লালমোহন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাবিবুল হাসান রুমী, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফখরুল আলম হাওলাদার।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাবিবুল হাসান রুমি বলেন, আমি অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের জন্য মাননীয় এমপি মহোদয়ের সুপারিশে প্রত্যেকের জন্য নগদ ১০ হাজার টাকা ও ১ মণ করে চাল বিতরণ করা হবে। এছাড়া জেলা প্রশাসকের উদ্যোগে প্রত্যেকের জন্য আরো ২০ কেজি চাল, ১ বান্ডিল ঢেউ টিন ও নগদ ৩ হাজার টাকা করে বিতরণ করা হবে।

আরও পড়ুন

Thursday, September 23, 2021

সর্বশেষ