ভোলার লালমোহনে সাপ আতংকে ক্লিনিকের কার্যক্রম বন্ধ !

ভোলা প্রতিনিধি ॥ ভোলার লালমোহনে বিষধর সাপ আতংকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে একটি কমিউনিটি ক্লিনিকের সব ধরণের কার্যক্রম। প্রতিনিদিনেই সাপের উপদ্রবের কারণে বন্ধ করে দেওয়া হয় উপজেলার পশ্চিম চর উমেদ ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের পাঙ্গাশিয়া কেরামতিয়া কমিউনিটি ক্লিনিকটির কার্যক্রম। গত দুই মাস ধরে ক্লিনিকটির ভিতরে ১০/১২ টি করে সাপ দেখা যায়। হঠাৎ গত রবিবার ক্লিনিকটির ভিতর দেড় শত সাপের দেখা মিলে। সে সময় উৎসুক জনতা সাপগুলো মেরে ফেলে। সেদিন সিমা নামের এক রোগীকেও সাপে দংশন করে। পরের দিন সোমবার ক্লিনিকের সিএইচসিপি মো: মাহাবুবুর রহমান বিষয়টি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে জানালে তিনি সাময়িক সময়ের জন্য সেবা নিতে আসা রোগীদের অন্য স্থানে সেবা প্রদান করতে বলেন এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ক্লিনিকের ভিতরের সকল কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন। গত মঙ্গলবার দুপুরের দিকে ওই ক্লিনিকে অবারো ২৫ টি সাপের দেখা মিলে। এতে আতংক বিরাজ করছে ক্লিনিকের দায়িত্বপ্রাপ্ত সিএইচসিপি, সেবা নিতে আসা রোগী ও এলাকাবাসীর মাঝে।
সেবা নিতে আসা রোগী মো: আবু তাহের, মো: বেলাল হোসেন, পারভীন আক্তার জানান, আমরা সাপের ভয়ে ক্লিনিকে সেবা নিতে যেতে পারছি না। সেখানে প্রতিদিন বিষধর সাপ দেখা যায়। ক্লিনিকের সিএইচসিপি মো: মাহাবুবুর রহমান বলেন, প্রতিদিন এখানে সাপ দেখা যায়। সে জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার নির্দেশে ক্লিনিকের ভিতরে সব ধরণের কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়ে অন্য স্থানে সেবা প্রদান করা হচ্ছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: আব্দুর রশিদ বলেন, ওই ক্লিনিকের সিএইচসিপি বিষয়টি আমাকে জানানোর পরে আমি বিষয়টি জেলা সিভিল সার্জনকে জানালে তিনি বলেছেন পার্শ্ববর্তী কাচারিতে রোগীদের সেবা দিতে বলেন। অন্যদিকে উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার পরামর্শ অনুযায়ী ওই ক্লিনিকের ভিতরে কার্বোনিক এসিড দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন

Thursday, September 16, 2021

সর্বশেষ