ভোলায় দুর্বৃত্তের ছোড়া এসিডে দগ্ধ দুই বোন l

ভোলা প্রতিনিধি ॥ ভোলার সদর উপজেলার উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নে দুর্বৃত্তদের ছোড়া এসিডে তানজিন আকতার সনিয়া (১৬) ও মারজিয়া (৮) নামের দুই বোন দগ্ধ হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার গভীর রাতে ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের নীল গাজি রাড়ি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আহত দু’বোন ওই এলাকার হেলাল রাঢ়ির মেয়ে। মঙ্গলবার সকালে তাদের ভোলা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল মেডিকেলে রেফার্ড করেন।
সদ্য মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া মেধারী ছাত্রী দগ্ধ তানজিন আকতার সনিয়া জানান, রাতে ভাত খেয়ে ছোট বোন মারজিয়াকে নিয়ে তিনি ঘুমিয়ে পড়ে। মধ্য রাতে হঠাৎ কে বা কারা তাদের লক্ষ্য করে জানালা দিয়ে এসিড নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়, তা তিনি বলতে পারে না। এতে সনিয়ার মখমন্ডল, বুক ও গলা ঝলসে যায়। এছাড়াও ২য় শ্রেণীর ছাত্রী ছোট বোন মারজিয়ার বুক ও হাতের কিছু অংশ দগ্ধ হয়।
এ সময় সনিয়া অভিযোগ করে বলেন, তাদের বাড়ির পাশে রাজিব নামের এক যুবক দীর্ঘদিন ধরে তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এতে তিনি রাজি না হওয়ায় রাজিব বিভিন্ন সময় মোবাইলে উত্ত্যক্ত করাসহ হুমকি দিয়ে আসছিল। এসব কারণেই রাজিবই এসিড নিক্ষেপ করেছে বলে ধারণা করছে সনিয়ার।
ভোলা সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক আরএমও ডাঃ তৈয়বুর রহমান জানান, আহত তানজিমের বাম চোখের অবস্থা গুরুতর। তাকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে তার ছোট বোন মারজিয়া শঙ্কামুক্ত।
খবর পেয়ে এসিডদগ্ধদের দেখতে হাসপাতালে ছুটে আসেন জেলা পুলিশ সুপার মোকতার হোসেন। তিনি বলেন, সকালেই এ ঘটনার সাথে জড়িত ইউসুফ ও রাজিবের বাবাকে পুলিশ আটক করেছে। এছাড়া রাজিবকে আটকের চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন

Tuesday, September 21, 2021

সর্বশেষ