রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাঁচমাল সরবরাহের সুবিধার জন্য ঈশ্বরর্দীতে বাংলাদেশের ৩০ তম নদীবন্দর স্থাপন করছে সরকার l

ইব্রাহীম খলীল,পাবনা জেলা প্রতিনিধিঃ সম্প্রতি নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় নতুন এ বন্দরের সীমানা নির্ধারণ করে গেজেট প্রকাশ করেছে। এই নদীবন্দরের মাধ্যমে দেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের মালপত্র পরিবহন করা হবে। এর মধ্য দিয়ে দেশে মোট নদীবন্দরের সংখ্যা দাঁড়াল ৩০। সর্বশেষ গত বছরের মে মাসে সুনামগঞ্জ নদীবন্দর চালু করে সরকার। অপর এক গেজেটে নতুন বন্দরটির সংরক্ষকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষকে(বিআইডব্লিউটিএ)। এর আগের ২৯ নদীবন্দরের সংরক্ষকও এ সংস্থাটি। সরকার রূপপুরে ২ হাজার ৪০০ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতার পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন করছে। দুটি ইউনিট থেকে এ বিদ্যুৎ উৎপাদন হবে। ইতিমধ্যে চুল্লি নির্মাণের কাজ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২০২৩ সালে এ কেন্দ্র থেকে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ সরবরাহের লক্ষ্য নেওয়া হয়েছে। এই পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে ব্যাপক কর্মযজ্ঞ চলছে। বিদেশি ও আমদানি করা মালপত্রে এখানকার নির্মাণ কাজ করা হচ্ছে। এসব মালপত্র সরবরাহ সহজ করতে এর আগে ঈশ্বরদী থেকে রূপপুর পর্যন্ত২৬কিলোমিটার রেলপথ স্থাপনে প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। এখন নদীবন্দর স্থাপন করা হলো। এর মাধ্যমে নৌপথে মালপত্র পরিবহন সহজ হবে।

আরও পড়ুন

Thursday, September 23, 2021

সর্বশেষ