রামগতিতে সংখ্যালঘুর বসতঘর ও জমি জবর দখল

রামগতি (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে সংখ্যালঘু এক পরিবারের বসত ভিটি এবং নাল জমি জবর দখলের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।
থানা পুলিশ, স্থানীয় গন্যমান্যদের শালিশী রায় পাওয়ার পরও শুধুমাত্র গায়ের জোরে সম্পত্তি জবর দখলের চেষ্টা করছে প্রভাবশালী ব্যবসায়ী বাহার গংরা এমন অভিযোগ করছে হিন্দু পরিবারটি ।
বর্তমানে ভুক্তভোগী পরিবারটি উচ্ছেদ আতংকে নানান শংকায় দিনযাপন করছে।
জানা যায়, জাজিয়া মৌজর ৬০,৬২ জেএলের ৯৮২ নং খতিয়ানের ৯০৮৯, ৯০৮৮ দাগের অন্দরে ৬ শতক মৌরশী ভূমিতে বসবাস ও দোকানপাট দিয়ে ব্যবসা বানিজ্য করে আসছিলেন বিনন্দ কুমার দাসের ছেলে গৌরহরী দাস। সে ভূমিতে নজর পড়ে দখলবাজ স্থানীয় জোরদার চর আলগী ইউনিয়নের চর সেকান্দর গ্রামের নজির আহাম্মদের ছেলে বাহার গংদের। তারা ঐ ভূমি দখল করার জন্য মিথ্যা নামজারির কাগজ সাজিয়ে মামলা মকদ্দমা হুমকি ধমকি দিয়ে নানান ভাবে সংখ্যালঘূ পরিবারটিকে উচ্ছেদের পায়তারা করে আসছে।
দখলবাজরা যেখানেই মামলা বা অভিযোগ দিয়েছে সেখানে তারা পরাজিত হয়েছে। প্রতিটি যায়গায় তাদের বিরুদ্ধে রায় হওয়ায় এখন তারা রাতের আঁধারে হিন্দু পরিবারটিকে উচ্ছেদের পায়তারা করছে অভিযোগ রয়েছে।
গৌরহরী দাস, পৌর ২ নং ওয়ার্ডের বিনন্দ কুমার দাসের ছেলে।
ভূক্তভোগী গৌরহরী দাস জানায়, আমি আমার মৌরশী এবং সহোদর ভাইদের কাছ থেকে ক্রয়কৃত সম্মত্তি ভোগদখল ও বসবাস করে আসছিলাম। শুধুমাত্র একটি ভূয়া নামজারির কাগজ তৈরি করে জোরদার বাহার ও ফয়েজ আহাম্মদের ছেলে মিজান, শাহাজান, সুমন গংরা সম্পূর্ন গায়ের জোরে আমার সম্পদ দখল ও বসত ভিটি থেকে রাতের আঁধারে উচ্ছেদের পায়তারা করছে। পিএস, এমআর, ডিয়ারা রেকর্ড আমার নামে রয়েছে। দখলবাজরা আমার নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করলে সেই রায় তাদের বিরুদ্ধে হওয়ায় তারা না মেনে সম্পত্তি দখলের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। বর্তমানে তারা সেখানে বালু ফেলেছে। লাঠিয়াল বাহিনী নিয়ে রাতের আঁধারে দোকানপাট নির্মানের চেষ্টা করছে এবং আমাকে প্রাননাশসহ নানান ধরনের হুমকি ধমকি দিচ্ছে।

আরও পড়ুন

Wednesday, September 22, 2021

সর্বশেষ