আমার জীবন ভোলার মানুষের জন্য উৎসর্গ করলাম : তোফায়েল আহমেদ l

ভোলা প্রতিনিধি ॥ ক্ষমতাসীন আ’লীগ সরকারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ও ভোলা-১ আসনের সংসদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, আমার জীবন আমি ভোলার মানুষের জন্য উৎসর্গ করবো। আমার অতীদের জীবনেও আপনাদের জন্য কাজ করেছি, যতক্ষণ বেঁচে আছি ততক্ষণ সত্যতা ও নিষ্ঠার সাথে আপনাদের পাশে থেকে কাজ করে যাবো। ২৫ মার্চ সোমবার ভোলা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে অনুষ্ঠিত ভোলা সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা এবং উত্তর দিঘলদী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের তৃনমূল নেতা-কর্মীদের নিয়ে আয়োজিত মতবিনিময় সভার প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তোফায়েল আহমেদ আরো বলেন, ভোলাতে আমি অনেক কাজ করেছি। উত্তর দিঘলদীদে বড় কোন নেতার জন্ম হয়েছিলো। তিনি নিজের ইউনিয়নের জন্য কোন উন্নয়ন করতে পারেননি। তার পুত্র ৫ বছর এমপি ছিলো একটি রাস্তা করতে পারেনি। এমনকি তার বাড়ির রাস্তাও আ’লীগের আমলে আমি করে দিয়েছি। কিন্তু ভোলাতে এখন কোন কাঁচা রাস্তা নেই। দু’একটা যদি থেকেও থাকে সেটাও আমি করে দিবো।
ভোলার উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে তিনি আরো বলেন, ভোলাতে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। ভোলাকে আমি বাংলাদেশের মধ্যে ২য় সিঙ্গাপুর আদলে গড়ে তোলাই আমার ইচ্ছা। আমার বিশ্বাস; আমি তা করতে পারবো। মেঘনা নদীর তীরে পর্যটন কেন্দ্র হবে। বিভিন্ন দেশ-বিদেশি পর্যটক সেখানে ঘুরতে আসবে। ভোলাতে অনেক গ্যাস ভিত্তিক শিল্প মজুত আছে। ভোলার পশ্চিম ইলিশার শেলটেক ৬শ’ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি ইন্ড্রাষ্টি করেছে। সেটা আরো বাড়ানো হবে বলেও জানান তিনি।
এছাড়া তোফায়েল আহমেদ তার এক বক্তব্য বলেন আমার হয়ে আপনাদের পাশে থেকে সেবা করার জন্য আমি আমার সন্তন বিপ্লবকে রেখে গেছি। সে আপনাদের যে কোন সমস্যার সমাধান আন্তরিক হয়ে সমাধান করবে। আমি ধন্য বিপ্লব আমার হয়ে আপনাদের সেবা কাজ করে যাচ্ছে।
জমি-জামা দখলদার এর বিরুদ্ধে হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, যদি দলীয় কোন নেতা-কর্মীদের প্রভাবে কারো জমি-জামা দখল বা উচ্ছেদ হয় আমাকে কিংবা আমি না থাকলে আমার সন্তান বিপ্লবকে জানাবেন, আমরা তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিব।
সাবেক সফল মন্ত্রী আরো বলেন আমি মন্ত্রী না হলেও যারা মন্ত্রী তাঁরা আমার ভাই, আমার আপনজন। আমি যা চাইবো তা পাবো। ভোলার গ্রামগুলো শহরে পরিণত করা হবে। এদিকে ভোলা-বরিশাল ব্রীজের বাস্তবায়নের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি রয়েছে ভোলা-বরিশাল ব্রীজের প্রতি। আমার একটা স্বপ্ন ছিলো ভোলা-বরিশাল ব্রীজ নিয়ে। ইতিমধ্যে তাও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কথা রক্ষার মাধ্যমে বাস্তবায়িত হবে বলে মন্তব্য করেন তোফায়েল আহমেদ।
ভোলা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মমিন টুলু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোহম্মদ ইউনুস এবং ভোলা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব প্রমূখ।
সদর উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় ভোলার পশ্চিম ইলিশা ও উত্তর দিঘলদী ইউনিয়ন আ’লীগের হাজার হাজার নারী-পুরুষ নেতা-কর্মী সমাবেশে অংশগ্রহণ করে।
উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার থেকে ভোলা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের নেতাক-র্মীদর নিয়ে অনুষ্ঠিত ভোলা-১ আসনের সাংসদ তোফায়েল আহমেদ পাঁচ দিনব্যাপী এ তবিনিময় সভায় অংশগ্রহণ করেন।

আরও পড়ুন

Sunday, September 26, 2021

সর্বশেষ