রক্তাক্ত ভোলার বোরহানউদ্দিন ॥ পুলিশ-জনতার সংঘর্ষে নিহত-৪ ॥ গুলিবিদ্ধ-৯ ॥ আহত শতাধিক

চীফ রিপোর্টার, ভোলা ॥ ভোলার বোরহানউদ্দিন উজেলায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে মহানবী (স:) কে নিয়ে কটুক্তিমূলক আপত্তিকর পোস্ট দেয় স্থানীয় হিন্দু যুবক বিপ্লব চন্দ্র শুভ। এর প্রতিবাদে মুসল্লিদের একটি সমাবেশে পুলিশ ও জনতার সংঘর্ষে ৪ জন নিহত হয়েছেন। এ সময় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন ৯ জন। পুলিশসহ আহত হয়েছে শতাধিক। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে বিজিবি ও কোষ্টগার্ড মোতায়েন করা হয়েছে। রোববার দুপুরের দিকে বোরহানউদ্দিনের ঈদগাহ জামে মসজিদ মাঠে এ ঘটনা ঘটে।
মুসলিম জনতার দাবি হযরত মোহাম্মদ (সা:) কে নিয়ে ফেসবুকে আপত্তিকর কটুক্তি করার প্রতিবাদে তাদের পূর্ণ নির্ধারিত সমাবেশে তারা একত্রিত হয়। এসময় তাদের শান্তিপূণ প্রতিবাদ সমাবেশে পুলিশ বাধা দেয় পুলিশ। এতে পুলিশ ও জনতার মাঝে উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করার এক ফাঁকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে জনতার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে কাদােিনা গ্যাস ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। পুলিশের নিক্ষিপ্ত বুলেটের আঘাতে প্রাণ হারান ৪ জন। পুলিশ-জনতার সংঘর্ষে নিহতরা হলেন- মাহফজুর রহমান পাটোয়ারী (২৩), মিজান (৩০), মাহবুর রহমান (৩০) ও শাহিন (২৫)। নিহতদের বাড়ি একই এলাকায়। নিহত মাহফুজ বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার মিরাজ পাটোয়ারীর ভাই। এ ঘটনায় পুলিশসহ শতাধিক লোক আহত হয়েছে। আহরা বোরহানউদ্দিন ও ভোলা সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এসময় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বোরহানউদ্দিন উপজেলার ছোটমানিকা এলাকার মিজানুর রহমান (৩০), নান্টু (৪০), মাকসুদুর রহমান (১৮), তানভীর (৩০), অলিউল্লাহ (৪০), সিদ্দিক (২৮), তাহের, শামীম ও সোহরাবসহ আরো অনেক জনতা। তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশালের শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
অপরদিকে পুলিশ দাবি করেন তারা শান্তিপূর্ণ অবস্থান বজায় রাখতে ঘটনাস্থলে সকল কার্যক্রম পরিচালিত করছেন। হঠাৎ করে কিছু উশৃঙ্খল জনতা তাদের উপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে তাদের ধাওয়ায় দেয়। তখন তারা মসজিদের ২য় তলায় আশ্রয় নেয়। সেখানেও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে তাদের ১০/১২ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়। তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়ার জন্য কাদানো গ্যাস ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেন। এসময় তারা জানান, এ ঘটনায় ৩ জন মুসলিম জনতা নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় তারা প্রায় ১২-১৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। বর্তমানে বোরহানউদ্দিনে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় উদ্ভুত পরিস্থিতি মোকাবিলায় হেলিকপ্টারে করে জরুরি ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। দুপুরে বিজিবির জনসংযোগ কর্মকর্তা মোঃ শরিফুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এছাড়া বোরহানউদ্দিনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় কাজ করছে ১ প্লাটুন কোস্টগার্ড সদস্য। কোস্টগার্ডের মিডিয়া উইংয়ের কর্মকর্তা কাজী ফয়সাল এ তথ্য জানিয়েছেন।
বোরহানউদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোঃ শাহীন জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত মাহফুজ ও মিজানের মরদেহ হাসপাতালে আনা হয়েছে। আহতাবস্থায় এখাবে বেশ কয়েকজন ভর্তি রয়েছে।
অপরদিকে, ভোলা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. তৈবুর রহমান জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে চিকিৎসা নিতে আসা দুই ব্যক্তি এখানে মারা যান।
এ ব্যাপারে ভোলা পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার ৪ জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, অনুমতি ছাড়াই তারা সমাবেশ করতে চেয়েছিল। আমরা তাদের দ্রুত শেষ করতে বলি। কিন্তু তারা কথা না শুনে উল্টো আমাদের ওপর হামলা চালায়। একপর্যায়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গুলি ছুড়তে বাধ্য হই আমরা। তিনি আরো জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ, বিজিবি ও কোষ্টগার্ড মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে বরিশাল বিভাগীয় ডিআইজি, জেলা প্রশাসকসহ প্রশাসনের ঊধ্বর্তন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে রয়েছেন।
এদিকে বোরহানউদ্দিনের ঘটনায় প্রতিবাদে ভোলায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে ইসলাম আন্দোলন। মিছিল শেষে ভোলা প্রেসক্লাবের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। এ সময় তারা সর্বদলীয় মুসলিম ঐক্য পরিষদ নামের নতুন একটি সংগঠন নাম ঘোষণা করেন। আজ সোমবার সকাল ১১ টায় ভোলা সরকারি স্কুল মাঠে সর্বদলীয় মুসলিম ঐক্য পরিষদের ব্যানারে এক প্রতিবাদ সভার আয়োজনের ঘোষণা করেছেন ইসলামী আন্দোলনের ভোলার নেতারা।
ভোলা প্রেসক্লাবের সামনে প্রতিবাদ সভায় বক্তারা যে ৬ দফা ঘোষণা করেন সেগুলো হলো-১। মহানবী (সঃ) কে গালি দেওয়া বিপ্লব চন্দ্র শুভর ফাঁসি কার্যকর। ২। নিহত শহীদদের লাশ পোষ্টমর্টেম ছাড়াই হস্তান্তর করা। ৩। এই সংঘর্ষে আহতদের সরকারী ভাবে চিকিৎসা দেওয়া। ৪। বোরহানউদ্দিনের ওসি ও ভোলার পুলিশ সুপারকে প্রত্যাহার করা। ৫। নিহতদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া। ৬. গ্রেপ্তারকৃতদের নিঃশর্তে মুক্তি দেওয়া।
মাওলানা বশির উদ্দিনের সভাপতিত্বে এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন সর্বদলীয় ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব মাওলানা মিজানুর রহমান, মাওলানা তাজ উদ্দিন ফারুকী। বক্তারা বলেন ৬ দফা দাবী না মানলে লাগাতর আন্দোলন ঘোষনা করেন বক্তারা।
উল্লেখ্য, শুক্রবার বোরহানউদ্দিন উপজেলার কাচিয়া ২নং ওয়ার্ডের বিপ্লব চন্দ্র শুভ নামে এক যুবকের ফেসবুক পোস্টকে কেন্দ্র করে উপজেলাজুড়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। শনিবার ওই যুবকসহ আরও একজনকে আটক করে পুলিশ। পুলিশ বিপ্ল চন্দ্র শুভকে থানায় আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন। এ ঘটনায় বিপ্লবের ফাঁসির দাবি করে পুরো মুসলিম জনতা ক্ষিপ্ত হয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

আরও পড়ুন

Friday, September 24, 2021

সর্বশেষ