বোরহান উদ্দিনে বাবুল কবিরাজের নেতৃত্বে চলছে মা ইলিশ নিধন ও ইয়াবা ব্যবসা

মীর মোহাম্মদ গিয়াসউদ্দিন

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার বড় মানিকা ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা শাজাহান কবিরাজের ছেলে বাবুল কবিরাজ ও তার ভাই শিপন কবিরাজের নেতৃত্বে মেঘনার জল সীমায় জলদস্যুতা, ইয়াবা ব্যবসা ও বড় ধরনের জুয়ার আসর বসানোসহ নানা অপকর্মেরর ঘটনা ঘটেই চলেছে। দীর্ঘ দিন ধরে তাদের এসব ভয়ঙ্কর অপরাধমুলক কর্মকান্ড পরিচালিত হলেও কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পাচ্ছেনা।
খোজ নিয়ে জানাগেছে, বাবুল কবিরাজ এক সময়ে পেশায় নৌকার মাঝি ছিল। এ সুবাধে নদীতে ডাকাতিসহ নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়ে। নদীতে ডাকাতি করার একপর্যায়ে সে এক বিশাল বাহিনি তৈরি করে নতুন ভাবে জলদস্যুতা করে। পাশা পাশি ইয়াবা ব্যবসার দিকে নজর পরে তাদের। বর্তমানে তারা ইয়াবার বড় সম্রাট বলে স্থানীয় লোকজন জানান। অন্যদিকে বিভিন্ন স্থানে বড় বড় জুয়ার আসর বসিয়ে সেখান থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা কামিয়ে নিচ্ছে তারা।
অবৈধ পথের আয়ের মাধ্যমে তারা এখন কোটিপতি।
স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান,বাবুল কবিরাজ এক সময়ে নৌকার মাজি ছিল। এখন এছহাক মোরে মাছের দালালি করে। তবে সে অনেক আগেই নদীতে ডাকাতি করত। এখন শুনেছি সে ইয়াবা ব্যবসা ও জুয়ার আসর বসিয়ে স্বঘোষিত গডফাদার দাবী করে টাকা কামাচ্ছে। এসব করে বাবুল ও তার ভাই কয়েক কোটি টাকার মালিক।
এদিকে মা ইলিশ ধরার নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বাবুল কবিরাজ প্রথম থেকেই মা ইলিশ নিধন করে প্রকাশ্যে বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ সচেতন লোকজন প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

আরও পড়ুন

Thursday, September 23, 2021

সর্বশেষ