পাবনা শহরে সিএনজি ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য, দেখার কেউ নেই

ইব্রাহীম খলীল, পাবনা জেলা প্রতিনিধি: পাবনা শহরে সিএনজি ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য চলছে। সিএনজি অটোরিকশা নীতিমালায় মাধ্যমে ভাড়া নিয়ে যাত্রীর চাহিদা অনুযায়ী গন্তব্যে যেতে চালকের বাধ্যবাধকতা থাকলেও তা মানছেন না তারা। ‘যেমন খুশি তেমন’ স্টাইলে ভাড়া হাঁকিয়ে যাত্রীদের গন্তব্যে যেতে বাধ্য করা হচ্ছে।

আজ সোমবার পহেলা জুন শহরের সিএনজি স্ট্যান্ড থেকে টেবুনিয়ায় ১৫ টাকার জায়গায় ২৫ টাকা। দেবোত্তর ও আটঘরিয়া যাত্রী প্রতি ২০ ও ৩০ টাকার জায়গায় ৪০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। পাবনা থেকে চাটমোহরের ভাড়া ৪০ টাকার জায়গায় ৮০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। সরোজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, সিএনজি অটোরিকশার চালকরা মিটারে নয়- চুক্তির মাধ্যমে ভাড়ায় যেতেই আগ্রহী। তারা ৫জন যাত্রীর জায়গায় চুক্তি মাফিক ৩ জন যাত্রী গাড়ীতে উঠাচ্ছেন। যাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি ভাড়া আদায় করতেই এ কৌশল তাদের।

একজন সিএনজি চালকের নিকট থেকে জানতে পারা যায়, মালিক সমিতির পক্ষ থেকে এমনটা করা হয়েছে। কালাম নামের এক যাত্রী বলেন, আমি চাটমোহর যাবো। সিএনজি চালকরা আমার থেকে ৪০ টাকার জায়গায় ৮০ টাকা ভাড়া চাইছে। আমি সকালে আইছি ৪০ টাকা ভাড়ায় কিন্তু এখন কচ্ছে ৮০ টাকা দেওয়া লাগবি। আমাদের এমনিতে কামাই নাই। সংসার চালাতে হিমসিম খাচ্ছি।

একজন রোগীর আত্নীয় বলেন, আমার ভাইকে হাসপাতালে ভর্তি করে রেখেছি। সে শারীরিক ভাবে অসুস্থ। কিন্তু তাকে দেখতে এবং খাবার নিয়ে হাসপাতালে দুই থেকে তিন বার চলাচল করতে হচ্ছে। সিএনজি ভাড়া বাড়ানোর জন্য আমার খুব কষ্ট হচ্ছে। আসলে এযেনো ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য চলছে। দেখার কেউ নেই।

আরও পড়ুন

Sunday, September 26, 2021

সর্বশেষ