ভোলার দৌলতখানে শিশু সন্তানকে হত্যা করে মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা

ভোলা প্রতিনিধি ॥ ভোলার দৌলতখানে শাকিল (৮) নামে এক শিশু সন্তানকে গলা টিপে হত্যার পর গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন মা। বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) রাত ১২ টার দিকে উপজেলার চরখলিফা ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের মেহের আলী মুন্সি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে দৌলতখান থানা পুলিশের সদস্যরা নিহত শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নিয়ে আসেন। নিহত শিশু শাকিল দৌলতখান উপজেলার চরখলিফা ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের আল আমিনের ছেলে।
পুলিশ ও স্বজনরা জানান, আল আমিনের স্ত্রী রুনু বেগম দীর্ঘদিন ধরে মানসিক রোগে আক্রান্ত ছিলেন। সামান্ন কোন বিষয় নিয়ে শিশু শাকিলকে অনেক সময় বেধড়ক মারধর করতেন। বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে ঘরের দড়জা বন্ধ অবস্থায় হঠাৎ করে ঘর থেকে কান্নার শব্দ পাওয়া যায়। পরে স্থানীয়রা এসে মা রুনু বেগমকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালানো অবস্থায় দেখেন। এসমময় স্থানীয়রা শিশু শাকিলের মুখ দিয়ে ফেনা বের হতে দেখে দৌলতখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে থানা পুলিশের সদস্যরা শিশু শাকিলের মরদেহ উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন।
দৌলতখান থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলার রহমান জানান, সকালে শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তর জন্য ভোলা হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে ধারনা করা হচ্ছে শিশুকে গলা টিপে হত্যা করা হয়েছে। ময়না তদন্তর প্রতিবেদন পাওয়া গেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। তবে শিশুটির মা মানসিক রোগে আক্রান্ত। তিনি ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

 

আরও পড়ুন

Friday, September 23, 2022

সর্বশেষ