ডিমলায় বেড়াতে এসে ভারতীয় নাগরিকের মৃত্যু

মশিয়ার রহমান,নীলফামারী প্রতিনিধি:-
নীলফামারী ডিমলা উপজেলায় মেয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসে অনিল চন্দ্র রায় (৭২) নামে এক ভারতীয় নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে ডিমলা উপজেলার সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ তিতপাড়া এলাকায় বড় মেয়ের জামাতা কৈলাশ চন্দ্র রায়ের বাড়িতে মারা যান তিনি।

অনিল চন্দ্র রায়ের বাড়ি ভারতের জলপাইগুড়ি জেলার ডেঙ্গুয়ার ঝাড় এলাকার উত্তর বরুয়াপাড়া এলাকায়। অনিল চন্দ্রের প্রথম মেয়ে অঞ্জলী রানী রায়ের সঙ্গে বিয়ে হয় কৈলাশের।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, অনিল ৩০ দিনের ভিসায় লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দর হয়ে ডিমলার মেয়ের বাড়িতে বেড়াতে আসেন গত ৬ জুলাই।

মেয়ের জামাতা কৈলাশ চন্দ্র জানান, বার্ধক্যজনিত কারণে আজ সকালে মারা যান তিনি। বিষয়টি পুলিশ প্রশাসন ও ভারতীয় হাইকমিশনকে অবহিত করা হয়েছে। প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া শেষে তাকে সৎকারের উদ্যোগ নেওয়া হবে। তিনি জানান, পাঁচ মেয়ের মধ্যে শুধুমাত্র বড় মেয়ের বিয়ে হয় বাংলাদেশে। তার তিন চাচাশ্বশুর ডিমলার বাসিন্দা।

ডিমলা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) বিশ্বদেব রায় জানান, মৃত্যুর বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) জানানো হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন থেকে ভারতীয় হাইকমিশনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে। সিদ্ধান্ত এলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ডিমলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বেলায়েত হোসেন বলেন, ভারতীয় হাইকমিশনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে। ওই ব্যক্তির চার মেয়ে বাংলাদেশে লাশ সৎকারের ব্যাপারে ভারতীয় হাইকমিশনে যোগাযোগ করেছেন বলেও শুনেছি। সিদ্ধান্ত এলে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং সময় লাগলে সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত মরদেহ হিমঘরে রাখা হবে।

আরও পড়ুন

Thursday, October 6, 2022

সর্বশেষ