ডিমলায় দুই ব্যবসায়ীকে ভোক্তা অধিকারের জরিমানা

(মশিয়ার রহমান,নীলফামারী প্রতিনিধি):-
নীলফামারী ডিমলায় অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে এছাড়াও নিম্নমানের উপকরণ ও রং দিয়ে আইসক্রিম তৈরীর অপরাধে ভোক্তা অধিকার আইনের ২০০৯ এর ৫৩ ধারায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে কারখানার মালিককে ৮ হাজার ও ৪৫ ধারায় পণ্যের প্যাকেটের গায়ে মার্কারী কলম দিয়ে মূল্য মুছে নতুন মূল্যের স্টিকার ব্যবহার করার অপরাধে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে৷

জানা গেছে, মঙ্গলবার (২রা আগস্ট) দুপুরে উপজেলা সদর ইউনিয়নের বাবুরহাট বাজারে আফজাল ইলেকট্রনিক্সে ওয়ালটন কোম্পানির কম্বাইন্ড সুইচ বোর্ডের প্যাকেটে মার্কারী কলম দিয়ে পণ্যের মূল্য মুছে নতুন মূল্যের স্টিকার ব্যবহার করার অপরাধে ২ হাজার ও টিএনটি রোডের ফরিদের আইসক্রিম কারখানায় অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে ঘনচিনি (সেকারীন) দিয়ে শিশু খাদ্য হিসেবে আইসক্রিম তৈরির অপরাধে ৮ হাজার মোট ১০ হাজর টাকা জরিমানা করেছে নীলফামারী জেলা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোঃ শামসুল আলম৷
এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্যানিটারী ইন্সপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক মোঃ ওয়াহেদুল ইসলাম সহ ডিমলা থানার পুলিশ প্রশাসন।

স্যানিটারী ইন্সপেক্টর ওয়াহেদুল ইসলাম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ওই আইসক্রিম তৈরির কারখানায় অসাধু উপায় অবলম্বন করে নিম্নমানের উপকরণ দিয়ে শিশু খাদ্য আইসক্রিম তৈরি করে আসছিলো।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নীলফামারীর সহকারী পরিচালক ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট শামসুল আলম বলেন, এমন খাদ্য সামগ্রীর কারখানা তৈরী অস্বাস্থ্যকর আইসক্রিম যদি শিশুরা খায়, তাহলে শিশুদের পেটের সমস্যা ও কিডনির মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। পরবর্তীতে আর যেন এভাবে নোংরা পরিবেশ ও অসাধু উপায়ে আইসক্রিম তৈরি করা না হয় এমন নিষেধাজ্ঞা দিয়ে কারখানার মালিককে সাবধান করেন।

আরও পড়ুন

Friday, October 7, 2022

সর্বশেষ