প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর দিবে বলে প্রতারণা করে অর্থ আদায় ॥ লালমোহনে চক্র আটক

চীফ রিপোর্টার ॥ ভোলার লালমোহনে প্রধানমন্ত্রীর ভীষণ-২ প্রকল্পের আওতায় ও শেখ জাহিন আহম্মেদ সাবু নামে কন্সট্রাকশনের বাস্তবায়নে লালমোহন ও চরফ্যাশন উপজেলায় আশ্রয়ণের ঘর দেয়ার কথা বলে অর্থ আদায় ও বিভিন্ন জনকে চাকুরি দেয়ার নামে অর্থ আদায়ের অভিযোগে মোহাম্মদ আলী সরকার (৬৫) নামে এক প্রতারক ও তার সহযোগী সুরেন্দ্র নাথ ঢালী (৪৫) নামে দুই প্রতারককে আটক করেছে পুলিশ।
সোমবার রাতে পৌর শহরের ওয়েষ্টার্ণ পাড়া থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। মোহাম্মদ আলী সরকার চরফ্যাশন উপজেলার জিন্নাগর ইউনিয়নের আদর্শপাড়া এলাকার বাসিন্দা মৃত গৌরাঙ্গ সরকারের ছেলে। তার পূর্বের নাম মাধব চন্দ্র সরকার। সে দুই বছর আগে ধর্মান্তরিত হয়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে এবং মোহাম্মদ আলী সরকার নাম ধারণ করে। চাকরি দেয়ার নামে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে মো. আবদুর রাজ্জাক নামের এক ব্যক্তি বাদি হয়ে ওই প্রতারকচক্রের বিরুদ্ধে লালমোহন থানায় মামলা দায়ের করেছে।
মামলার বাদি জানায়, প্রধানমন্ত্রীর নামে ভীষণ-২ প্রকল্পের আওতায় সাধারণ মানুষের মাঝে ঘর বিতরণ করা হবে। বিষয়টি বিশ্বাসযোগ্য করে তুলতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে মোহাম্মদ আলী সরকারের ছবি ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদেরকে এ এ প্রকল্পে চাকরি দেয়া হয়েছে বলে একাধিক চুক্তিনামা দেখানো হয়। সেই প্রকল্পে চাকরির কথা বলে তার কাছ থেকে একলক্ষ টাকা নেয় মোহাম্মদ আলী সরকার। পরে তাকে লালমোহন পৌর শহরের ওয়েষ্টার্ণ পাড়ার ঠিকানায় অফিসে আসতে বলে এবং সাধারণ মানুষের কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহ করতে বলে। এতে আ. রাজ্জাকের সন্দেহ হলে টাকা ফেরত চায় সে।
লালমোহন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাকসুদুর রহমান মুরাদ জানান, স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে পৌরশহরের ৮নং ওয়ার্ড থেকে তাকে আটক করা হয়। এসময় তার অফিসে প্রধানমন্ত্রীর ছবির সাথে মোহাম্মদ আলী সরকারের ছবি টানানো পাওয়া যায়, যা সম্পূর্ণ এডিট করা। এছাড়াও অসংখ্য ছবি, একটি অনলাইন টিভির কার্ড, কয়েকটি স্টাম্প ও ডায়েরি উদ্ধার করা হয়। পরে চাকরির নামে প্রতারণার শিকার যুবক আ: রাজ্জাকের অভিযোগের ভিত্তিতে প্রতারকচক্রের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

Friday, September 23, 2022

সর্বশেষ