বগুড়ায় ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে আজিজুল হক কলেজ শিক্ষক গ্রেপ্তার

বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের সহকারি অধ্যাপক জিন্নাতুল ইসলাম প্রামানিকের (৫৩) বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছে এক শিক্ষার্থী। অভিযোগকারী শিক্ষার্থী সরকারি আজিজুল হক কলেজের একই বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী। মঙ্গলবার (১ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১১ টার দিকে অভিযোগকারী ছাত্রী নিজে বগুড়া সদর থানায় এসে শিক্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দ্বায়ের করেন। এদিন বিষয়টি নিশ্চিত করেন বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নূরে আলম সিদ্দিকী। এমনকি আসামী শিক্ষককে শহরের চকসূত্রাপুর থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও জানান তিনি। গ্রেফতারকৃত আসামী শহরের রানারসিটি এলাকার বাসিন্দা। দ্বায়েরকৃত মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, শিক্ষক জিন্নাতুল ইসলাম গত ৩ থেকে ৪ বছর যাবত প্রাইভেট পড়ান। এরই জেরে দুইজনের মধ্যে পরিচয় গড়ে ওঠে। আর এই সুযোগে দীর্ঘদিন যাবত আমার সাথে প্রতারণামূলক প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন এবং বিভিন্ন সময় নগ্ন ছবি গোপনে ধারণ করেন। আর এসকল ছবি ও ভিডিও দেখিয়ে বিভিন্ন সময় শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতে থাকেন। এক সময় এমন ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দিবে এমন হুমকি দিলে তাঁর সাথে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ি ও অন্তঃসত্ত্বা হয় ওই শিক্ষার্থী। সর্বশেষ গত ১০ অক্টোবর তারিখে বেলা ১টা ৩৫ মিনিটের দিকে নিজ বাসায় ভুক্তভোগীকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন অভিযুক্ত শিক্ষক। এরপর ওই শিক্ষার্থী অন্তঃসত্ত্বা হলে তাকে বাচ্চা নষ্ট করার জন্য চাপ দিতে থাকেন তিনি। কিন্তু অন্তঃসত্ত্বা শিক্ষার্থী বাচ্চা নষ্ট করতে না চাইলে তাকে মারপিট ও মেরে জখম করা হয়। এ বিষয়ে বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজের অধ্যক্ষ শাজাহান আলীর সাথে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন

Wednesday, December 7, 2022

সর্বশেষ