বাবার চিকিৎসার খরচ জোগাতে গিয়ে ভোলায় লাশ হলো ছেলে নূর হোসেন

ভোলা প্রতিনিধি ॥ ভোলায় বাবার চিকিৎসার খরচ জোগাতে গিয়ে লাশ হয়ে বাড়ী ফিরেছে ছেলে কলেজ শিক্ষার্থী নূর হোসেন। সোমবার (৭ নভেম্বর) দুপুরে ভোলা সদর উপজেলার বাপ্তা ভোটের ঘর এলাকায় মাহিন্দ্রা এবং অটো রিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত হন তিনি। নূর হোসেন ভোলা শহরের ওবায়দুল হক কলেজের উচ্চমাধ্যমিক এর দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন। সে সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের সদুর চর এলাকার মোঃ আবুল কালামের ছেলে।
নিহতের পরিবার সুত্রে জানা যায়, নূর হোসেনের বাবা আবুল কালাম বিগত ২ বছর যাবত যক্ষ্মা রোগে আক্রান্ত। তিনিও একজন রিকশা চালক ছিলেন। রিকশা চালিয়েই তিনি পরিবারের খরচ জোগাতেন। সম্প্রতি তিনি গুরুত্বর রোগাক্রান্ত হয়ে পড়েন। সংসার এবং চিকিৎসার খরচ জোগার করতে তিনি হিমসীমের মধ্যে পড়ে যান। সংসারের কথা চিন্তা করে আজ সকালে বাবার রিকশা নিয়ে সড়কে বের হন নূর হোসেন। দুপুরে শহর থেকে যাত্রী নিয়ে পরানগঞ্জ যাওয়ার জন্য রওয়ানা দেন তিনি। বাপ্তা ভোটের ঘর এলাকায় পৌছলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাহিন্দ্রা তাকে চাঁপা দিলে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। তারপরও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ভোলার ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তখন তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। নিহত নূর হোসেন ভোলা শহরের ওবায়দুল হক কলেজের উচ্চমাধ্যমিক এর দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন এবং তিনি সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের সদুর চর এলাকার মোঃ আবুল কালামের ছেলে।
এদিকে নূর হোসেনের দুর্ঘটনার খবর বাড়ীতে পৌছলে স্বজনরা হাসপাতালে ছুটে আসেন। তখন স্বজনদের আহাজারিতে ভোলার ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে এক হৃদয় বিদার অবস্থা তৈরী হয়। হাসপাতালের আকাশ-বাতাজ স্বজনদের কান্নায় ভারি হয়ে যায়। সেখানে অবস্থানরত অনেককেই কান্না করতে দেখা গেছে। নিহত নূর হোসেনের রিকশায় থাকা অপর আরেক কলেজ শিক্ষার্থী রাসেলও আহত হন। আহত রাসেল ভোলার ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পুরুষ সার্জারী ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
নিহতের চাচাতো ভাই আনোয়ার আরিফ জানান, নূর হোসেন ভোলা ওবায়দুল হক মহাবিদ্যালয়ে ইন্টারমিডিয়েট দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। হঠাৎ তার বাবা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে বাবার চিকিৎসার জন্য টাকা জোগাড় করতে গিয়েই সড়ক দুর্ঘটনায় তার মৃত্যু হয়। এ সময় ওই রিকশায় থাকা যাত্রী মো. রাসেলও আহত হোন। বর্তমানে তিনি ভোলা সদর হাসপাতালে পুরুষ সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছেন।
ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহীন ফকির ঘটনার নিশ্চিত করে বলেন, সোমবার দুপুরে কলেজ ছাত্র নূর হোসেন পরিবারের খরচ জোগাতে যাত্রী নিয়ে শহর থেকে পরানগঞ্জের দিতে যাচ্ছিলেন। এ সময় বাপ্তা ভোটের ঘর এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা মাহিন্দ্রার সাথে তার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এসময় নূর হোসেন ঘটনাস্থলেই মারা যায়। ওসি আরও জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া আহত কলেজ ছাত্রকে ভোলা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

আরও পড়ুন

Wednesday, December 7, 2022

সর্বশেষ