ভোলায় নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো

ভোলা প্রতিনিধি ॥ পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচনে ভোলায় বুধবার (৫ জানুয়ারি) আকাশে যখন সূর্য উঠেনি, চারিদিকে যখন ঘন কুয়াশা আর বৃষ্টির ফোটার মতো টিপ টিপ কুয়াশা মাটিতে পড়ছে, গরম পোশাককেও হার মানিয়েছে শীত। ঠিক সে সময়ে নারী ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত। এ ঘন কুয়াশাও হার মানাতে পারেনি নারী ভোটারদেরকে। দমিয় রাখতে পারেনি এ কুয়াশা ও ঠান্ডার পরিবেশ।
নির্বাচনের আগেই ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত তরুণী, বয়স্ক এবং বৃদ্ধা ভোটাররা। ছুটতে থাকেন ভোটকেন্দ্রের দিকে। নারী-পুরুষ উভয় ভোটারদের গন্তব্য তখন ভোটকেন্দ্র। কেউবা হেঁটে, কেউবা রিকশায় একে একে জড়ো হতে থাকে সবাই। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নির্দেশনায় ভোট কেন্দ্রের লাইনে দাড়াতে শুরু করে ভোটাররা। বেলা ৮টা বাজার সাথে সাথে দীর্ঘক্ষণ লাইনে থাকার পর ভোট দিতে পেরে একচিলতে হাঁসি দেয় ভোটাররা।
সরেজমিনে দেখা যায়, পুরুষের তুলনায় নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো। পুরুষদের পাশাপাশি নারীরাও ঠান্ডাকে উপেক্ষা করে লাইনে দাড়াতে শুরু করে। তবে বেশিরভাগ কেন্দ্রে নারীরা দিনের প্রথমদিকে ভোট দেওয়ার জন্য উপচেপড়া ভীড় করে। যা সচরাচর দেখা যায় না।
সাধারণত নির্বাচনে সহিংসতা হয় বলে বেশিরভাগ সময় দেখা যায়, নারী ভোটারদের উপস্থিতি কম থাকে। কিন্তু ৫ম ধাপে (৫ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত ভোলা সদরের ১২টি ইউনিয়ন পরিষদ এই নির্বাচনে ভোলার আলীনগর, চরসামাইয়া, ভেলুমিয়া, ইলিশা ইউনিয়নসহ বেশ কয়েকটি ইউনিয়নে এমন ভিন্ন চিত্র মিলে।
ভোট দিতে আসা সালেহা নামের এক তরুণী বলেন, এটা আমার জীবনের প্রথম ভোট। কিছুক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষার পর নিজের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত। আলাপকালে ৭৫ বছরের বৃদ্ধা নাছিমা, আকলিমা বলেন, বয়সতো আর কম অয় নো; জানিনা আর ভোট দিতে পারুম কিনা। ভোরে আইয়া ভোটটা দিয়া দিছি। সুষ্ঠ পরিবেশে ভোট দিতে পেরে খুব ভাল লাগছে।
উল্লেখ্য, ৫ম ধাপে ভোলা সদর উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে (৫ জানুয়ারি) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্যে শিবপুর, আলীনগর ও ভেদুরিয়াসহ ৩টি ইউনিয়নে ইভিএম এ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

আরও পড়ুন

Thursday, October 6, 2022

সর্বশেষ